অফ-ট্র্যাক বান্দরবান ২০১২ (কিস্তি ৪)

রাসেলের বাম পায়ের পাতায় ব্যথা করছে। সম্ভবত তার পা বাঁকা হয়ে কোথাও পড়েছে, তাই ব্যাথা করছে। কিন্তু সে হাঁটতে পারছে, তাই আমাদের পরিকল্পনা ভেস্তে যাবার সম্ভাবনা নেই। আমরা আমাদের প্ল্যানেই থাকলাম। গাইড দুজনকে অনুসরণ করে আমরা একটা ত্রিপুরা পাড়ায় পৌঁছলাম। পাড়াটার নাম বিকাশ বলেছিল, কিন্তু লিখে রাখিনি তখন। বগামুখ থেকে নেমে এসে আমরা এই পাড়ার…

বিস্তারিত

অফ-ট্র্যাক বান্দরবান ২০১২ (কিস্তি ৩)

আমাদের প্রকৃত যাত্রাপথ রুমা খালের মুখ (22° 1’57.00″N, 92°24’53.48″E) থেকে শুরু বলে শেষবারের মতো আমরা সম্মিলিতভাবে হাত তুলে প্রার্থণা করে নিলাম আল্লাহ’র কাছে। স্বাভাবিকভাবেই সে প্রার্থণায় বিকাশ আর আপেল সামিল হলো না। আমরা পানিতে পা রাখলাম, ভিজিয়ে ফেললাম পরনের অ্যাংকলেট, এবং এটাও বুঝলাম, আমাদেরকে এভাবে পথে অনেক অনেকবার ভিজতে হবে, শুকাতে হবে —এগুলো গোনায় ধরা যাবে…

বিস্তারিত

অফ-ট্র্যাক বান্দরবান ২০১২ (কিস্তি ২)

শেষ পর্যন্ত সমাধান বেরুলো:        আমরা তিনজন: উদ্দেশ্য বগালেক, কিওক্রাডাং (গাইড: সিয়াম)        ওরা দুজন: উদ্দেশ্য বগামুখ পাড়া, তারপর নিজস্ব পরিকল্পিত পথ (গাইড: একজন) রাতের খাবার শেষ হলে আবু বকর ঢাকায় ভ্রমণ বাংলাদেশ-এর বড় ভাইদের সাথে যোগাযোগ করে স্থানীয় গাইডকে খবর দিলেন। সে ব্যস্ত থাকায় পাঠালো পরিচিত গাইড সুমন দত্তকে। আবু বকর আর কামরুলের পথের…

বিস্তারিত

অফ-ট্র্যাক বান্দরবান ২০১২

~ দুটো নতুন ঝরণা আর নতুন পথের দিশা ~ ৮০ ডিগ্রী খাড়া ঢাল, সারিবদ্ধ আমরা পাঁচ জন, পায়ের নিচে গুড়ি গুড়ি নুড়ি পাথরের ছড়াছড়ি, নিজের শরীরের ওজন আর ব্যাগের ওজন মিলে মাধ্যাকর্ষণের টানে নিচের দিকে টানছে; পা হড়কালে ১০০ ফুট নিচের পাথুরে খাঁদে চির সমাধি, তাও শুধু একজনের নয়, নিচে, খাড়া পাহাড়ের সাথে ঝুজতে থাকা…

বিস্তারিত

বান্দরবান ভ্রমণ ২০১১ : পর্ব ৩

গাড়ি নীলগিরির চূড়ায় উঠলে একটা পার্কিং এলাকা। এখানে পার্কিংয়ের জন্য যে টাকা দিতে হবে (৳৩০০), তা আমাদেরকে বহন করতে হবে, ড্রাইভারের সাথে এমনটাই চুক্তি হয়েছিল। যাবতীয় খরচ একহাতে হচ্ছে, তাই ইফতি এগিয়ে গেলো আর্মির ছোট্ট কমান্ড পোস্টটার দিকে। সেখান থেকে আবার জনপ্রতি টিকিট (৳৫০) কেটে উপরের চূড়ায় উঠতে হয়। যারা কটেজ ভাড়া করে আসেননি, তাদেরকে…

বিস্তারিত

আমার মায়ের ইন্টেরিয়র ডিযাইন

~ স্বল্প খরচে সুন্দর ঘর ~ আমার মধ্যে যদি ক্রিয়েটিভ কিছু থেকে থাকে, তবে সেটুকু পেয়েছি আমি আমার মা থেকে। তিনিই মূলত আমাদের ঘরটা সাজিয়ে রাখেন তাঁর মনের মতো করে। মাঝে মাঝেই তিনি পরিবর্তন আনেন তাঁর সাজিয়ে রাখা ঘরে। সবসময় পরিষ্কার রাখার একটা বাতিকও আছে তাঁর। ফলে সাজানো-গোছানো ঘরটাকেও আরো পরিশিলিত লাগে। যাহোক, মূল কথায়…

বিস্তারিত

আমি জানতাম না

প্রশ্ন: আমি কি আমার ল্যাপটপটা পরিবেশবান্ধবভাবে চার্জ করতে পারি, যেমন: সূর্যালোক দিয়ে? উত্তর: অবশ্যই, সবচেয়ে ছোটখাটো যে সৌরচার্জার আমরা পাই, তা দিয়েই ২৬ ওয়াটের মতো বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যায়, যা এনার্জি স্টার^ চিহ্নিত নয় এমন ম্যাকিনটোশ ও বহনযোগ্য পিসি চার্জ দেবার জন্য যথেষ্ট। প্রশ্ন: কাঁথা-কম্বল বানাতে পলিস্টার নাকি অ্যাক্রিলিক সুতা ব্যবহার করা পরিবেশবান্ধব হবে? উত্তর: পরিবেশবান্ধব…

বিস্তারিত

রিসাইকেল কিংবা পুণর্ব্যবহার : মজার বাসস্থান

মালামাল বহনের জন্য যেসব লোহা বা টিনের কন্টেইনার ব্যবহার করা হয়, সেগুলোর টেম্পার নষ্ট হয়ে যায়, মানে আর মালামাল বহনের যোগ্যতা থাকে না, তখন সেগুলো যদি শ্রেফ ফেলে দেয়া হয়, কী হবে অবস্থা? সেগুলো পরিবেশের সাথে মিশতে মিশতে বহু বহু যুগ চলে যাবে। তার চেয়ে চলুন আমরা কিভাবে সেই কন্টেইনারগুলোকে কাজে লাগিয়ে অসাধারণ সব বাড়ি-ঘর…

বিস্তারিত

আমি পরিবেশবান্ধব হবো কিভাবে?

আমি যদি এখন আপনাকে প্রশ্ন করি, “আচ্ছা বর্তমান বিশ্বে সবচেয়ে আলোচিত বিষয় কোনটি?” আপনি তখন খুব সহজেই উত্তর করতে পারবেন, “গ্লোবাল ওয়ার্মিং, বৈশ্বিক উষ্ণায়ন”। “বাহ্, আপনি তো বেশ ভালোই খবর রাখেন, তা এখন বলুনতো এই গ্লোবাল ওয়ার্মিং জিনিসটা কী?” আপনি তখন আমাকে আশ্চর্য করে দিয়ে বলে দিবেন, “সারা পৃথিবীর যে তাপমাত্রা বাড়ছে, এইটাই হলো গ্লোবাল…

বিস্তারিত

আমি যেভাবে আমার LED বাল্বের আলো বাড়ালাম

এলইডি বাল্ব দিয়ে ঘরের আলোর চাহিদা পূরণের ধারণাটি যে অধুনা বেশ সামনে চলে এসেছে, তা জানতে পারি ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক চ্যানেলের মাধ্যমে; তাও ভারতীয় নয়, ইউরোপীয়। ভারতীয় ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক চ্যানেলে শ্রেফ ওয়াইল্ড লাইফ দিয়ে মানুষকে ভুলিয়ে রাখছে। ইউরোপীয় ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক চ্যানেলে অনেক শিক্ষণীয় বিষয় দেখায়, যা আমরা বাঙালিরা দেখতে পারি না। যাই হোক, আমার বন্ধু নাকিবের…

বিস্তারিত

জাদুর নল সেচ খরচ কমায়

‘‘ধান ফলাতে কতখানি পানি লাগে তা আগে কোনোদিন চিন্তা করিনি, কেউ শেখায়ওনি। ধানের জমিতে যতক্ষণ ভাসানো পানি না দেখা যায় ততক্ষণ কৃষকের চোখও ভরেনা, মনও ভরেনা। আমার ততক্ষণ মনের মধ্যে খালি অশান্তি লাগে।’’ বাংলাদেশের শেরপুরের চাষী মোয়াজ্জেম হোসেনের এই বক্তব্য সারা বাংলাদেশের অধিকাংশ কৃষকের, এমনকি অনেক শিক্ষিত লোকেরও। কিন্তু যদি প্রশ্নটা করি তাহলে আপনিও ধরতে…

বিস্তারিত

জলবায়ু তহবিল – এই অর্থ, আমাদের নয়, ওদের দরকার

ওরা নাকি আমাদেরকে অর্থ সহায়তা দিবে, এই টাকা আমাদের দরকার, হাহ্! কেন দরকার? কারণ, আমরা গরীব, আমরা বিপন্ন: সমুদ্রের তলায় ডুবে যাবো। জাতিসংঘ এইসব ভাওতামার্কা ডায়লগে আবার সহায়তা করে, বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে ওরা একত্রিত হয়ে বলছে, দরিদ্র রাষ্ট্র আর দ্বীপ-রাষ্ট্রকে অর্থ সহায়তা দিবো আমরা। আমরা এই টাকা এনে কী করবো? ওদের কাছে অনেক জবাব আছে। আমি…

বিস্তারিত

ঐসব পরিবেশবান্ধব বাড়ি আমার লাগবে না

আজ, ১৮ নভেম্বর, বন্ধু নাকিবের জন্মদিন। লেখাটি তাঁকেই উৎসর্গ করলাম। এক মধ্যবিত্ত ব্যক্তি গেছেন এক স্থপতির কাছে। নাম তাঁর মোহাম্মদ আলাউদ্দিন খান। আলাউদ্দিন খান: শোনেন, আমার একটা জায়গা আছে। আমার ইচ্ছা হইলো, এই জায়গায় একটা পাচতালা বাড়ি বানায়ে তার এক তালায় থাকবো, আর বাড়িভাড়ার আয় দিয়া বাকি জীবনটা কাটায়া দিব। আমি মধ্যবিত্ত মানুষ, বেশি একটা টাকা-পয়সার…

বিস্তারিত